নেতাদের উজ্জীবিত করতে ১১০০ ইফতার অনুষ্ঠান করেছে বিএনপি

নেতাদের উজ্জীবিত করতে ১১০০ ইফতার অনুষ্ঠান করেছে বিএনপি
Rate this post

সংশ্লিষ্ট নেতারা বলছেন, রমজান মাসে কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি না থাকা অবস্থায় মামলার ভারে ক্লান্ত হয়ে সম্প্রতি কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়া নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়াতেই মূলত এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। উদ্দেশ্য ছিল মাঠ পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের মধ্যে আস্থা তৈরি করা যারা দীর্ঘ আন্দোলনের সময় কারাভোগ ও দমন-পীড়নে হতাশ হয়ে পড়েছিলেন। নীতিনির্ধারণী নেতারা পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাতে মুক্তি পাওয়া নেতাকর্মীদের বাড়িতে যান। আন্দোলনের সময় অপহৃত, নিহত বা পঙ্গু হওয়া নেতাকর্মীদের পরিবার ও স্বজনদের আর্থিক সহায়তা ও ঈদ উপহার দেন তারা।

রমজানের জন্য এই কর্মসূচির পরিকল্পনা করা হয়েছে মূলত দলের নেতাদের পুনর্গঠন ও সক্রিয় করার লক্ষ্যে। ইফতার অনুষ্ঠানে বিপুল ভোটার উপস্থিতিতে সন্তুষ্ট নীতিনির্ধারকরা। ময়মনসিংহ, বগুড়া, রংপুর, ঠাকুরগাঁও, সিলেট, ঝিনাইদহ, যশোর, নওগাঁ, কক্সবাজার এবং অন্যান্য জেলা ও উপজেলায় খোলা আকাশের ইফতার ছিল বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপকালে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক (ময়মনসিংহ) সৈয়দ এমরান সালেহ বলেন, নির্বাচনের সময় ২৭ হাজার নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। হাজার হাজার মামলার মুখোমুখি হয়ে এখনও পলাতক ছিলেন অসংখ্য নেতাকর্মী। তাদের ব্যক্তিগত জীবন বিপর্যস্ত ছিল। ইফতার কর্মসূচিগুলো ছিল দলীয় নেতাকর্মীদের মিলনমেলা এবং তাদের উজ্জীবিত করার জন্য।

source

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *